যদি আসলেই হয় ৩য় বিশ্বযুদ্ধ?

বর্তমান বিশ্ব রাজনীতি যে পরিমাণ উত্তপ্ত তাতে চলুন একটা বিষয় কল্পনা করা যাক। ধরুন, কাল বিকেলে অফিস/ক্লাস/খেলা/অন্য কোথাও থেকে বাসায় এসে একটু আয়েস করে সোফায় হেলান দিয়ে বসে টিভিটা ছাড়লেন আপনি। তারপরই দেখলেন ব্রেকিং নিউজ, “তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয়ে গেছে”, তাহলে কী করবেন? কারণ এখন কোনো একটা বিশ্বযুদ্ধ লাগলে আমার সবচেয়ে বড় ভয় পারমাণবিক বোম নিয়ে। কোথায় যাবেন? আর পারমাণবিক বোম না মারুক, প্লেন থেকে যে অন্য কোনো বোম ফেলবে না তার গ্যারান্টিই বা কোথায়?
এবার আসুন একটু ইতিহাস থেকে ঘুরে আসা যাক। সোভিয়েত কোল্ড ওয়্যারের দিককার কথা। সামরিক বাহিনীর নানা গোলাবারুদ, বোম এবং অন্যান্য রসদ জমা করে রাখার জন্য বেছে নেওয়া হয় জার্মানির রথেনস্টেইনের এক চুনাপাথরের পাহাড়কে। সেখানে ৭৬ একর এলাকা জুড়ে বানানো হয় এক বিশাল আন্ডারগ্রাউন্ড বাঙ্কার। বর্তমানে বিশাল এ সম্পত্তিটি আছে Vivos Europa One নামক এক প্রতিষ্ঠানের অধীনে। আর বিশাল এ আন্ডারগ্রাউন্ড এরিয়াটি ব্যবহার করা হবে প্রথমে উল্লেখ করা কল্পিত দৃশ্যের সময়ই। তবে আমার আপনার কোনো আশাও নাই, ভরসাও নাই। কারণ তাদের টার্গেটই বিশ্বের সব বাঘা বাঘা শিল্পপতি আর বিলিয়নিয়াররা। আমি-আপনি তো কেবলই শতপতি, হাজারপতি অথবা লাখপতি…

4
এবার তাহলে একটু সেই বাঙ্কারের গল্পই করা যাকঃ
> এটিকে বলা হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় আন্ডারগ্রাউন্ড বাঙ্কার যেখানে দীর্ঘদিন থাকার ব্যবস্থা আছে। তবে যে কেউ চাইলেই সেখানে যেতে পারবে না। শুধুমাত্র ভিভোসের হেলিকপ্টারে চড়েই সেখানে ঢোকার প্রবেশাধিকার পাওয়া যাবে।
> এখন তাহলে দেখা যাক এটা কতটা শক্তিশালী। ভিভোসের দাবি মতে, তাদের দরজা এবং করিডোরগুলো নিউক্লিয়ার ব্লাস্ট, প্লেন ক্র্যাশ, বায়োলজিক্যাল ও কেমিক্যাল এজেন্ট, ভূমিকম্প এবং অন্য সশস্ত্র আক্রমণ ঠেকাতে সক্ষম! কী দিয়ে বানানো এইটা? আল্লাহ মালুম!
> ১৬,৪০০ ফুট টানেল চেম্বার, দুটো নিজস্ব আবহাওয়া ও ভেন্টিলেশন সিস্টেম, নিজস্ব ওয়াটার এন্ড পাওয়ার জেনারেশন প্ল্যান্ট আছে এখানে। অবৈধ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে চারদিকে আছে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

মাটির নিচে থাকলেও আধুনিক জীবনযাত্রার সকল ব্যবস্থাই আছে এখানে। নিজস্ব মেডিক্যাল ফ্যাসিলিটি, হাইলি ডেকোরেটেড করিডোর, গির্জা, বার, সুইমিং পুল- কী নেই সেখানে?
> প্রতিটি চেম্বারের দাম ৫ মিলিয়ন $ মাত্র! এগুলো অবশ্য ক্রেতার চাহিদা মোতাবেকই বানানো হয়।
> প্রতিটি পরিবার পাবে ২,৫০০ বর্গফুট এলাকা যেখানে থাকবে অভিজাত থিয়েটার, জিম, পুল, কিচেন, বার এবং বেডরুম।
> সব মিলিয়ে মোট ৬০,০০০ বর্গফুট ব্লাস্ট প্রুফ এরিয়া আছে সেখানে, আছে এর বাসিন্দাদের জন্য আলাদা ট্রেনের ব্যবস্থাও।

1

2

3

5

সবকিছু পড়ার পর শুধু মনে হলো, ‘ওরা’ যুদ্ধ লাগাবে, ‘ওরা’ মানুষ মারবে, ‘ওরা’ আরামে ঘুমাবে। আর এর সব ব্যবস্থাই তো ‘ওরা’ করে রাখছে। এই ‘ওরা’ কারা? ‘ওরা’ তো ওরাই…
[[ ভিভোসের সাইটঃ http://terravivos.com/secure/vivoseuropaone.htm ]]

Facebook Comments
Please follow and like us:
250

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!