আইস কুল সাবানের রহস্য

গরমের দিনে আইস কুল সাবান দিয়ে গোসল করার মজাই আলাদা। তীব্র গরমে একটুর জন্য হলেও তা আমাদের ঠান্ডা অনুভূতি উপহার দেয়।
প্রশ্ন হলো আইস কুল সাবানে কি এমন আছে যা আমাদের ঠান্ডা অনুভব করার সুযোগ দেয়? কি প্রক্রিয়ায় এই সাবানটি এ পরোপকারী কাজটি সাধন করে থাকে?

মেনথল। এর নাম আমরা কম বেশ সবাই শুনেছি। মেনথলের কারণেই আমরা ঠান্ডা অনুভব করি। কেবল আইস কুল সাবানেই নয়, আরো অনেক ধরণের শেইভিং ক্রীম, চকলেটেও এই মেনথল ব্যবহার করা হয়।

মেনথল কি?
মেনথল হচ্ছে এক প্রাকৃতিক উপাদান যা কিনা পিপারমিন্ট (Mentha piperita L.) নামক উদ্ভিদে পাওয়া যায়। সাধারণত মেনথল এবং পিপারমিন্ট তেল মিশ্রিত অবস্থায় পাওয়া যায়। মেনথল ও ইউক্যালিপটাস তেলের মিশ্রণ সাধারণত প্রসাধনী সামগ্রীতে ব্যবহার করা হয়। এ ইউক্যালিপটাস তেলের আবার একটি গুণ হচ্ছে তা মৃদু বেদনা নাশক হিসেবে ভূমিকা পালন করে, সাথে সাথে এটি একটি টারপিনয়েডও ( উদ্ভিদে টারপিনয়েডের উপস্থিতি ঘ্রাণের সৃষ্টি করে এবং প্রতিষেধকের বৈশিষ্ট্যও প্রদর্শন করে)। IUPAC অনুসারে মেনথলের নাম আইসোপ্রোপাইল ৫-মিথাইল সাইক্লোহেক্সানল।

cas15356-60-2
চিত্রঃ মেনথলের রাসায়নিক গঠন (C10H20O)

মেনথল হচ্ছে একটি মনো টারপিন। টারপিন ও টারপিনয়েড উদ্ভেদের ঘ্রাণ ও স্বাদ সৃষ্টির জন্য দায়ী। মেনথল একটি প্রতিষেধকও।

Menthol_Crystals_close_up
চিত্রঃ মেনথলের কেলাস রূপ

মেনথল কিভাবে ঠান্ডা অনুভূত হয়?
আমাদের ত্বকের মস্তিষ্কর সাথে স্নায়ুসমূহ তারের মতই সংযুক্ত। বৈদ্যুতিক সংকেতের মাধ্যমে বিভিন্ন অনুভূতি মস্তিষ্কে এবং আমাদের ত্বকে এসে পৌছায়। আমাদের ত্বকের যে সব অংশ ঠান্ডা অনুভূতি লাগার তথ্য মতিষ্কে পাঠায় সে সকল স্থানেই আমাদের ঠান্ডা অনুভূতির উপহার দেয় মেনথল। TRPM8, TRPM1 নামক প্রোটিনের (যারা কিনা কেন্দ্রীয় ও পেরিফেরাল স্নায়ুতে উপস্থিত) উপর ক্রিয়া করে এবং এ স্নায়ু ঠান্ডা লাগার বার্তায় সাড়া দেয়। মেনথল এ স্নায়ুগুলোকে ঠান্ডা লাগার বার্তা এমন চালাকি করে প্রেরণ করে যাতে করে স্নায়ু গুলো আসলেই বিশ্বাস করে ফেলে যে, মেনথল ঠান্ডা বস্তু। কিন্তু আসলে মেনথল নিজে ঠান্ডা কোনো বস্তু নয়।
TRPM8 হচ্ছে এক ধরণের ভোল্টেজ গেট আয়ন প্রোটিন তথা এটি যখন তাপমাত্রার পার্থক্য বুঝতে পারে তখন ক্যালসিয়াম আয়নকে ভিতরে প্রবেশ করায়। তাপমাত্রা যখন কমে যায় তখন TRPM8 প্রোটিনের আকার এমন ভাবে পরিবর্তিত হয় যাতে সে ক্যালসিয়াম আয়নকে স্নায়ু কোষে প্রবেশ করতে দিতে পারে। এর মাধ্যমে বৈদ্যুতিক সংকেত স্নায়ু কোষের কোষ পর্দা থেকে নির্গত হয়। অর্থাৎ সংকেত তখন মস্তিষ্ক তথা আপনাকে বলবে যে তাপমাত্রা কমে গিয়েছে।

c
চিত্রঃ TRPM8 প্রোটিন যেভাবে আমাদের মস্তিষ্কে ঠান্ডা লাগার অনুভূতির সংকেত দেয়।

তথ্যসূত্রঃ http://theconversation.com/why-menthol-chills-your-mouth-when-its-not-actually-cold-33115

লেখকঃ ফাতেমা-তুজ-জহুরা
শিক্ষার্থী, রসায়ন বিভাগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

Facebook Comments
Please follow and like us:
250

You may also like...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!